রোমে বর্ণবাদী হামলায় ২ বাংলাদেশি যুবক আহত

ইতালির রাজধানী রোমে বর্ণবাদীদের হামলায় মোহাম্মদ জাকারিয়া (৩৫) ও জাকির হোসেন (২৯) নামে দু’ বাংলাদেশি যুবক আহত হয়েছেন। রোমের সেতশেল্লে এলাকায় হঠাৎ তাদের ওপর এ হামলা চালানো হয়।

এদিকে বর্ণবাদী এ হামলার প্রতিবাদ জানাতে গত বুধবার (১০ জুলাই) ধূমকেতু সামাজিক সগঠনের উদ্যোগে ওই এলাকায় এক সমাবেশ করা হয়। এতে বিপুল সংখ্যক বাংলাদেশি অংশগ্রহণ করে বর্ণবাদী হামলা বন্ধ ও বিচারের দাবি জানায় প্রশাসনের কাছে।

জানা গেছে, ঘটনার দিন স্থানীয় সময় রাত সাড়ে ১২টার দিকে কাজ শেষে বাসায় ফেরার পথে পাঁচজনের একটা গ্রুপ রাস্তায় গতি রোধ করে জাকিরের শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করে এবং অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে চলে যায়। একইভাবে জাকারিয়াকে আঘাত করে আহত করা হয়। পরে স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নেন তারা। 

পুলিশের কাছে জবানবন্দি দিতে গিয়ে তারা বলেন, তিন মাস ধরে এ গ্রুপটি তাদের নানাভাবে বিরক্ত করে আসছিল। তারা একটু শান্তিতে বাস করতে চান। আহত বাংলাদেশিরা পুলিশকে অনুরোধ করেন বর্ণবাদীদের গ্রেফতার করে উপযুক্ত শাস্তি দিতে। এ ঘটনা আমলে নিয়ে পুলিশও তদন্ত কাজ অব্যাহত রেখেছে। এ ব্যাপারে ধূমকেতু সামাজিক সংগঠনের প্রধান নুরে আলম বাচ্চু বলেন, ‘সত্যিকারের অপরাধীদের শাস্তি দেওয়া উচিত।’

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 


ইতালির রাজধানী রোমে বর্ণবাদীদের হামলায় মোহাম্মদ জাকারিয়া (৩৫) ও জাকির হোসেন (২৯) নামে দু’ বাংলাদেশি যুবক আহত হয়েছেন। রোমের সেতশেল্লে এলাকায় হঠাৎ তাদের ওপর এ হামলা চালানো হয়।

এদিকে বর্ণবাদী এ হামলার প্রতিবাদ জানাতে গত বুধবার (১০ জুলাই) ধূমকেতু সামাজিক সগঠনের উদ্যোগে ওই এলাকায় এক সমাবেশ করা হয়। এতে বিপুল সংখ্যক বাংলাদেশি অংশগ্রহণ করে বর্ণবাদী হামলা বন্ধ ও বিচারের দাবি জানায় প্রশাসনের কাছে।

জানা গেছে, ঘটনার দিন স্থানীয় সময় রাত সাড়ে ১২টার দিকে কাজ শেষে বাসায় ফেরার পথে পাঁচজনের একটা গ্রুপ রাস্তায় গতি রোধ করে জাকিরের শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করে এবং অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে চলে যায়। একইভাবে জাকারিয়াকে আঘাত করে আহত করা হয়। পরে স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নেন তারা।
 
পুলিশের কাছে জবানবন্দি দিতে গিয়ে তারা বলেন, তিন মাস ধরে এ গ্রুপটি তাদের নানাভাবে বিরক্ত করে আসছিল। তারা একটু শান্তিতে বাস করতে চান। আহত বাংলাদেশিরা পুলিশকে অনুরোধ করেন বর্ণবাদীদের গ্রেফতার করে উপযুক্ত শাস্তি দিতে। এ ঘটনা আমলে নিয়ে পুলিশও তদন্ত কাজ অব্যাহত রেখেছে। 

এ ব্যাপারে ধূমকেতু সামাজিক সংগঠনের প্রধান নুরে আলম বাচ্চু বলেন, ‘সত্যিকারের অপরাধীদের শাস্তি দেওয়া উচিত।’

মাইগ্রেশননিউজবিডি.কম/সাদেক ##

share this news to friends