ইটালিতে শিশু প্রহারের অভিযোগে বাংলাদেশি ইমাম গ্রেফতার

ইটালির ভেনিসে একটি ইসলামী শিক্ষা কেন্দ্রে শিশুদের মারধরের অভিযোগে শাহাদাত হোসেন (২৩) নামে এক বাংলাদেশি ইমামকে গ্রেফতার করেছে দেশটির পুলিশ। তার বাড়ি নরসিংদীতে। তাকে আদালতে তোলা হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ। 

গত মঙ্গলবার (১ অক্টোবর) দেশটির পাদোভা অঞ্চলের জাকোপো রোডে অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ কালচারাল সেন্টার থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। স্থানীয় গণমাধ্যম এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছে। 

সংবাদমাধ্যমটি জানায়, শাহাদাত পাদোভা ইসলামিক কালচারাল সেন্টার নামের মসজিদে শিশুদের কুরআন শরীফ পড়া শেখানোর শিক্ষক হিসেবে কাজ করছিলেন। প্রতিষ্ঠানটিতে বিপুল সংখ্যক ইটালীয় বাংলাদেশি শিশুও কুরআন শিক্ষা নিতে যায়। পাচঁ থেকে দশ বছর বয়সী কয়েকজন শিশুকে পড়াবার সময় বেদম পিটিয়েছেন তিনি। কাউকে কাউকে মাথায়ও আঘাত করেছেন এবং হুমকিও দিয়েছেন।

স্থানীয় পুলিশ জানায়, শিশু নির্যাতনের এ ঘটনার বিস্তারিত জানতে তদন্ত চলছে। এ ঘটনার আগে বাংলাদেশি শাহাদাতের স্টে-পারমিট মেয়াদোত্তীর্ণ হয়ে গেছে। তাকে আদালতে হাজির করা হবে।

উল্লেখ্য, ইটালিতে ১৮ বছরের নিচে যেকোনো শিশুকে মারধর করা মারাত্মক অপরাধ।

এই ঘটনায় পাদোভার মেয়র সার্জিও গিওরদানি বলেন, আমি প্রসিকিউটর ও পুলিশকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। তিনি বলেন, শিশুদের অবশ্যই মারধর করা উচিত নয়। আর প্রতিষ্ঠানটির এই কাজ মেনে নেওয়া যায় না। এটা বন্ধ করে আমাদের ইতিবাচক পরিবর্তন আনতে হবে।

বাংলাদেশের একটি টিভি চ্যানেলে ইটালি প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত একজন সাংবাদিক নাম না প্রকাশের শর্তে জানান, মসজিদ বা ঐ ইসলামিক সেন্টারটি এখানকার প্রবাসী বাংলাদেশিদের উদ্যোগেই প্রতিষ্ঠিত। তারা অনেক বছর কষ্ট করে স্থানীয় শহর কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে মসজিদের অনুমোদন নিয়ে নিজেরা চাঁদা তুলে মসজিদটি চালাতেন।

সেখানে কুরআন শিখতে আসা ছোট ছোট শিক্ষার্থীদের মারধরের ঘটনার খবর সেখানে দিনভর দেশটির চ্যানেল চ্যানেলগুলোতে দেখানো হয়। এদিকে এ ঘটনায় ইটালির সরকার ও রাজ্য প্রশাসন ইতিমধ্যেই খুব স্পর্শকাতর ঘটনা হিসেবে উল্লেখ করে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলেছে। এই ঘটনার জের ধরে প্রশাসন ঐ মসজিদটি বন্ধ করে দিতে পারে।

জানা গেছে, ঐ ইমামকে শিশুদের গায়ে হাত না তুলতে আগেই মসজিদ পরিচালনা কমিটি আগেও কয়েক দফা সতর্ক করে দিয়েছিল।

মাইগ্রেশননিউজবিডি.কম/সাদেক ##

share this news to friends