সিডনিতে উদ্বোধন হল বাংলাদেশ কনস্যুলেটের নতুন অফিস
ছবি : সিডনিতে নতুন কনস্যুলেট কার্যালয়।- সংগৃহিত

দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর অবশেষে সিডনিতে নতুন ভাবে বাংলাদেশ সরকারের কনস্যুলেট জেনারেলের অফিস উদ্বোধন হল। দু’ সপ্তাহ ধরে এই অফিসের কার্যক্রম শুরু হলেও গত বুধবার (২ অক্টোবর) নিউ সাউথ ওয়েলস রাজ্যের সিডনি সিটির ১৮৯, কেন্ট স্ট্রিটের প্রথম তলায় আনুষ্ঠানিক ভাবে উদ্বোধন করা হয়। প্রবাসীদের ‘অধিকতর কূটনৈতিক সেবা’ দিতে এ অফিস খোলা হয় বলে কনস্যুলেট সূত্র জানায়।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড ও ফিজির দায়িত্বপাপ্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার সুফিউর রহমান। কনসাল মো. কামরুজ্জামানের সঞ্চালনায় অস্ট্রেলিয়া ও বাংলাদেশের জাতীয় সঙ্গীত দিয়ে অনুষ্ঠান শুরুর পর স্বাগত বক্তব্য রাখেন কনসাল জেনারেল খন্দকার মাসুদুল আলম। 

এসময় ডেপুটি হাই কমিশনার তারেক আহমেদ, হাই কমিশন অফিস ক্যানবেরার দু’জন ফার্স্ট সেক্রেটারি নাহিদ আফরোজ ও তাহমিন দেলোয়ার মুনসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। 

আরো বক্তব্য রাখেন নিউ সাউথ ওয়েলস স্টেট পার্লামেন্টের সদস্য মার্ক কোরে, কান্টারবুরি সংসদ সদস্য সোফি কস্টিস ও প্রসপেক্ট এর সংসদ সদস্য হিউ ম্যাকডোরম্যাট।

উক্ত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে দেশের উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাবৃন্দের সাথে স্থানীয় আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ ও সাংবাদিকরা উপস্থিত উপস্থিত ছিলেন। 

ক্যানবেরাস্থ বাংলাদেশ হাই কমিশনের পাশাপাশি সিডনির কনস্যুলেট জেনারেল অফিস থেকেও প্রবাসী বাংলাদেশি এবং অস্ট্রেলিয়ান সিটিজেনদেরকে কনস্যুলার সেবা দেওয়া হবে। অস্ট্রেলিয়ার বাণিজ্যিক নগরী সিডনিতে অধিক বাংলাদেশিদের বসবাস বিধায় স্থায়ী কনস্যুলার অফিসের প্রয়োজন বোধ করে আসছিল দীর্ঘদিন ধরে। এই অঙ্গীকার পূরণ হওয়ায় সিডনিবাসী আনন্দিত।

উল্লেখ্য, আগে কনস্যুলার সেবার জন্য সিডনিবাসীদের ক্যানবেরায় বাংলাদেশ হাইকমিশন অফিসে যেতে হত। যদিও মাসের কিছু নির্দিষ্ট সময়ে সিডনির অস্থায়ী ক্যাম্পে সেবা দিতেন তারা। এই নতুন কনস্যুলেট অফিসে কনস্যুলেট জেনারেল খন্দকার মাসুদুল আলম ও কনসাল মো. কামরুজ্জামানসহ মোট ৮ জন কর্মরত আছেন।

প্রথম অবস্থায় এই কনস্যুলেট অফিস থেকে যে সকল সেবা প্রদান করা হবে তার মধ্যে আছে- নো ভিসা রিকয়ার্ড (এনভিআর), ট্রাভেল ডকুমেন্ট, এটেস্টেশন, পাওয়ার অব অ্যাটর্নি, এন্ডোর্সমেন্ট পাসপোর্টের ভিসা নবায়ন ও কনস্যুলার কনসালটেশন ইত্যাদি।

কনস্যুলেট জেনারেলের অফিস খোলা থাকবে সোম থেকে শুক্রবার সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত। তবে কনস্যুলার সেবা প্রদান করা হবে সকাল সাড়ে ৯টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা এবং অপরাহ্ন ২টা থেকে ৪টা পর্যন্ত। শনি ও রবিবার বন্ধ থাকবে। এছাড়া অন্যান্য সরকারী ছুটির দিনেও কনস্যুলেট অফিস বন্ধ থাকবে। ফি গ্রহণের জন্য পোস্টাল অর্ডার ও ব্যাংক ড্রাফটের পাশাপাশি ব্যাংক অ্যাকাউন্টও খোলা হয়েছে। ফোন নান্বার : ০২-৮৩২৬-৯৭৭৭।

মাইগ্রেশননিউজবিডি.কম/সাদেক ##

share this news to friends