নিউইয়র্কে হেইট ক্রাইমের শিকার নোয়াখালীর তারেক আজিজ

নিউইয়র্কের বাংলাদেশি অধ্যুষিত ওজনপার্কের ৭৭স্ট্রিটের লিবার্টি ও গ্ল্যানমোরের মাঝখানে হেইট ক্রাইমের শিকার হন এক প্রবাসী বাংলাদেশি। ভুক্তভোগীর নাম তারেক আজিজ। তার বাড়ি নোয়াখালীর চাটখিলে। গত বুধবার (২ অক্টোবর) স্থানীয় সময় রাত ২টা ৫০মিনিটে এ ঘটনা ঘটে।
 
প্রাপ্ত তথ্য মতে, তারেক আজিজ তার ডিউটি পালন করতে ৭৭স্ট্রিট আর লিবার্টির কর্নারের ইয়ামনী গ্রোসারী থেকে পণ্য বহন করে যখন ডেলিভারি দিতে যাচ্ছিলেন। দু’ কৃষ্ণাঙ্গ দুর্বৃত্ত পথে বাধা সৃষ্টি করে তার উপর উপর্যুপরি হামলাচালায়। দুর্বৃত্তদের আকস্মিক হামলায় মারাত্মক ভাবে আহত তারেক। তার আর্তচিৎকারে পাশ্ববর্তী বাসার লোকজন এগিয়ে আসলে মূহুর্তের মধ্যেই দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায় এবং তারা তারেক আজিজের কাছ থেকে নগদ ডলার সহ তার ব্যবহৃত বাইসাইকেলটি নিয়ে দ্রুত কেটে পড়ে।

পরে পুলিশের ইমার্জেন্সি বিভাগের অ্যাম্বুলেন্স আসলে তাকে প্রাথমিক চিকিৎকসা শেষে হাসপাতালে নিয়ে যায়। বর্তমানে তিনি জ্যামাইকা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। তবে তার মাথায় চরমভাবে আঘাত করা হয়েছে, যার দরুণ প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়েছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। 

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত স্থানীয় পুলিশ দুর্বৃত্তদের কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

উল্লেখ্য, গত ২ সেপ্টেম্বর ওজনপার্কেও পার্শ্ববর্তী এলাকা রিচমন্ড হিল নামক স্থানে দুর্বৃত্তদের হামলায় নিহত হন (সন্দীপের) যুক্তরাষ্ট্র জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি আলহাজ্ব বাবর উদ্দিনের ছেলে শাহেদ উদ্দিন (২৭)।

এছাড়াও গেল এক মাসের ব্যবধানে একই স্থানে চার চারটি হেইট ক্রাইমের ঘটনা ঘটেছে। তাতে নিরীহ চারজন প্রবাসী বাংলাদেশী  হামলার শিকার হয়েছেন।

ওজনপার্কে দুর্বৃত্তদের দৌরাত্ম্য বেড়ে যাওয়ায় কমিউনিটিতে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে এবং স্থানীয় কমিউনিটি চরম ভাবে শঙ্কিত। এ পরিস্থিতিতে অবিলম্বে দুর্বৃত্তদের গ্রেফতার এবং দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন কমিউনিটি শীর্ষস্থানীয় নেতৃবৃন্দ। 

পাশাপাশি স্থানীয় প্রশাসন যদি যথাযথ ব্যবস্থা নিতে ব্যর্থ হয়, তাহলে বাংলাদেশি কমিউনিটির সকল জনগণকে সাথে নিয়ে দুর্বৃত্তদের বিরুদ্ধে দুর্বার গতিতে আন্দোলন গড়ে তোলারও হুঁশিয়ারি ব্যক্ত করেন কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ।

মাইগ্রেশননিউজবিডি.কম/সাদেক ##

share this news to friends