যুক্তরাষ্ট্রে আটকা পড়া বাংলাদেশিরা ফিরবেন ১৪ বা ১৫ মে

বৈশ্বিক মহামারি আকার ধারণ করা নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে আটকা পড়া বাংলাদেশি নাগরিকদের দেশে ফিরিয়ে আনতে একটি বিশেষ চার্টার্ড ফ্লাইটের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। ফ্লাইটি আগামী ১৪ বা ১৫ মে যুক্তরাষ্ট্রের ডালাস আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর বা জন এফ কেনেডি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ঢাকার হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসবে।


পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও নিউইয়র্কের বাংলাদেশ কনস্যুলেট সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।


এ ব্যাপারে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন গণমাধ্যমকে বলেন, ‘বিশ্বের বিভিন্ন দেশে আটকে পড়াদের আমরা পর্যায়ক্রমে দেশে ফিরিয়ে আনব। একসঙ্গে সবাইকে আনতে গেলে আমাদের কোয়ারেন্টিনে (সঙ্গ নিরোধ ব্যবস্থা) কুলাবে না। আমরা চেষ্টা করছি কম খরচে তাদের দেশে ফিরিয়ে আনতে।’


নিউইয়র্কের বাংলাদেশ কনস্যুলেট এক বার্তায় জানানো হয়েছে, বাংলাদেশ দূতাবাস, ওয়াশিংটন ডিসি, বাংলাদেশ কনস্যুলেট নিউইয়র্ক এবং লস অ্যাঞ্জেলসের সাথে সমন্বিতভাবে কাতার এয়ারওয়েজের একটি চার্টার্ড ফ্লাইটে তাদের নিয়ে আসা হবে বলে ফ্লাইটটি ডালাস আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর বা জন এফ কেনেডি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ঢাকার হযরত শাহজালাল (রহ.) আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসবে।


বাংলাদেশে ফিরতে আগ্রহীদের যঃঃঢ়://মধষধীুধারধঃরড়হনফ.পড়স/ধরৎঃরপশবঃ/ ঠিকানায় গিয়ে অনলাইনে নিবন্ধন সম্পূর্ণ করতে এবং ফ্লাইটের সীমিত সংখ্যক আসন থাকায় যত তাড়াতাড়ি সম্ভব কাক্সিক্ষত টিকিট কিনতে বলা হয়েছে।


বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, ওয়াশিংটন ডিসিতে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাস মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, আর্জেন্টিনা, বেলিজ, কলম্বিয়া, ডোমিনিকান রিপাবলিক, ঘানা এবং ভেনেজুয়েলার কভিড-১৯ পরিস্থিতি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছে।


মাইগ্রেশননিউজবিডি.কম/এসআর ##

 

share this news to friends